হুইপ মহোদয়ের বানী

আদর্শ মহাবিদ্যালয়, দিনাজপুর শহরের কেন্দ্রস্থানে একটি স্বনামধ্ন্য ও ঐতিহ্যমন্ডিত শিক্ষা প্রতিষ্টান । দিনাজপুরের কয়েকজন উল্লেখযোগ্য আত্মত্যাগী ও বিদ্যানুরাগী ব্যক্তির অক্লান্ত পরিশ্রমে ১ সেপ্টেম্বর ১৯৬৯ খ্রিস্টাব্দে মহাবিদ্যালয়টি প্রতিষ্টিত হয়ে শিক্ষার গুণগত মান বিকাশে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে । আমি অত্র মহাবিদ্যালয়টির পরিচালনা পর্ষদের সভাপতির দায়িত্ব গ্রহন করার পর এর অবকাঠামো নির্মান, জাতীয় শিক্ষার অগ্রগতিতে মানসম্মত শিক্ষাদান ও প্রতিযোগিতামূলক শিক্ষার অভাবনীয় পরিবর্তন ঘটাতে সুষ্ঠু পরিকল্পনা মাফিক সার্বিক সহযোগিতা করে যাচ্ছে । এ লক্ষে যোগ্য ও মেধাসম্পূর্ণ অধ্যক্ষ, উপাধ্যক্ষ ও শিক্ষকদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে । তাঁরা তাঁদের মেধা ও বুদ্ধি খাটিয়ে আন্তরিকতাপূর্ণ পরিবেশে কর্তব্য ও নিষ্ঠার সাথে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করে যাচ্ছে । এতে শিখার্থীরা কাঙ্ক্ষিত ফলাফল অর্জন করে মহাবিদ্যালয়টি ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে । আধুনিক তথ্য- প্রযুক্তির যুগে শিক্ষার্থীদের আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত করার লক্ষে তথ্য- প্রযুক্তি ব্যবহার করে মানসম্মত শিক্ষা বিস্তারে আদর্ষ মহাবিদ্যালয়, দিনাজপুর-এর অবদান বিশেষ প্রশংসার দাবি রাখে । বাংলাদেশ এর স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়কে সামনে রেখে বঙ্গবন্ধু কন্যা গনপ্রজাতত্নী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, গনতন্ত্রের মানস কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার ভিশন-২০২১ অর্জনের লক্ষে, দিনবদলের সনদ বাস্তবায়ন এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্টার মানসচেতনায় দিনাজপুরকে জাতীয় উন্নয়নের সকল ধারায় সম্পৃক্ত করতে আমি দৃঢ় প্রতিজ্ঞ । এ উন্নয়নের ধারায় বর্তমান সরকারের প্রত্যক্ষ সহযোগিতা ও পরিকল্পনার আলোকে আমি এ মহাবিদ্যালয়ের শিক্ষার সার্বিক উন্নয়নের দিকটাকে অধিক গুরুত্ব দিয়ে সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে ।

এ মহাবিদ্যালয়টি ঊত্তরোত্তর উন্নতি ও সমৃদ্ধি কামনা এবং সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানাই ।